Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

মহেশপুরে পান্তা ভাতের অনুষ্ঠান ভন্ডুল

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) উপজেলা সংবাদদাতা। ঃ মহেশপুর উপজেলা পরিষদ আয়োজিত পান্তা ভাতের অনুষ্ঠানে অতিথিদের ভাত খেতে দেওয়া হয়নি। পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খানের অবহেলায় কর্মচারীরা অতিথিদের খাবার নিজেরাই খেয়ে শেষ করেছে বলে অভিযোগ উঠছে।
গতকাল শনিবার বর্ষবরণ ১৪২৫উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ পান্তা ভাতের আয়োজনের জন্য পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান কে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠন করে । সে অনুযায়ী মেয়র জেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে পান্তা ভাত ও মাছের আয়োজন করে।
সকাল ৮টার সময় মঙ্গল শেভাযাত্রা শেষে মেয়রের ফোন পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম বর্ষবরণ অনুষ্ঠান সমুহের প্রধান অতিথি ঝিনাইদহ -৩ আসনের এমপি নবী নেওয়াজ ও অন্যন্য অতিথিদের সাথে নিয়ে পান্তা ভাত খাওয়ার জন্য অডিটোরিয়ামে উপস্থিত হন। এ সময় পৌর মেয়র কে না পেয়ে ইউ এনও বার বার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে। কিন্তু ৫০গজ দূরে চা বাজারে মেয়র বসে থাকলেও অনুষ্ঠান স্থালে হাজির হন নি। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর ইউ এন ও দেখতে পান পৌর সভার কর্মচারীরা প্লেট নিয়ে পান্তা ভাত বেড়ে নিজেরা খাওয়া শুরু করে। অতিথিরা পান্তা ভাত না পেয়ে বিফল মনোরথে ফিরে আসে।
এ ব্যাপারে মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম জানান মেয়র আমাকে ফোন করে অতিথিদের নিয়ে অডিটোরিয়ামে পান্তাভাত খাওয়ার জন্য আসতে বলেন। এরপর আমি সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোজিনা খাতুন,থানার অফিসার ইনচার্জ লস্কর জায়াদুল হক,শিক্ষা অফিসার মাহবুবুর রহমান, আমজাদ হোসেন,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেরুন নেছা সহ স্থানীয় সাংবাদিক দের সাথে নিয়ে অডিটোরিয়ামে যায়।সেখানে মেয়র কে না পেয়ে বার বার তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করি । এক পর্যায়ে দেখতে পেলাম আমাদের জন্য রাখা পান্তাভাত ও মাছ কর্মচারীরা নিজেরাই বেড়ে খেয়ে ফেলছে। তখন আমরা অডিটোরিয়াম থেকে ফিরে আসি।
মহেশপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ খান জানান আমি তাদের কে আসার জন্য ফোন করে ছিলাম । কিন্তু সেখানে না থাকাটা আমার ভূল হয়েছে। যার কারণে পৌর কর্মচারীরা এমনটি ঘটিয়েছে।

 রিপোর্ট »রবিবার, ১৫ এপ্রিল , ২০১৮. সময়-৬:০৯ pm | বাংলা- 2 Boishakh 1425
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP