Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

মহেশপুরের শিশু আলপনা ধর্ষণ ও হত্যা মামলার ফাঁসির রায় হাইকোর্টে বহাল

এম এ সেলিম ,মহেশপুর ঃ
ঝিনাইদহের মহেশপুরে প্রায় ১২বছর আগে শিশু আলপনা খাতুনকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় আসামি সাইফুল ইসলাম ও আরিফ হোসেনের বিরুদ্ধে নি¤œ আদালতের দেওয়া ফাঁসির রায় হাইকোর্টে বহাল রয়েছে। এ মামলায় সাত বছর আগে ঝিনাইদহ জজ আদালতে তাদের বিরুদ্ধে ফাঁসির রায় হয়েছিল। আসামী পক্ষ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করে। মামলায় ডেথ রেফারেন্স, জেল আপিল ও দুই আসামির আপিলের শুনানি শেষে বিচারপতি মোঃরুহুল কুদ্Moheshpur Picture 18.01.2018দুস ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাই কোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার আসামি সাইফুল ইসলাম ও আরিফ হোসেনের বিরুদ্ধে নি¤œ আদালতের দেওয়া ফাঁসির রায় বহাল রেখেছে।
হাই কোর্ট রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মনিরুজ্জামান, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আবুল কালাম আজাদ খান, সৈয়দা সাবিনা আহমেদ, মারুফা আক্তার শিউলি। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী এস এম শাহজাহান ও আফিল উদ্দিন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৮ সালে ঝিনাইদহের মহেশপুরের কুরিপোল গ্রামের তোরাব আলীর কন্যা শিশু আলপনাকে আসামীদ্বয় পাট ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে। ওই ঘটনায় আলপনার বাবা তোরাব আলী ২০০৮ সালের ২৬ জুন ঝিনাইদহের নারী-শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। বিচার শেষে ২০১১ সালে আদালত দুই আসামির ফাঁসির রায় দেন।
উল্লেখঃ কুরিপোল গ্রামের তোরাব আলীর ৭বছরের শিশু কন্যা কে বাড়ীর পাশের সাইফুল ও আরিফ গ্রামের এক দোকান থেকে চকলেট কিনে ওই শিশুকে খেতে দিয়ে নিয়ে যায়। পরে পাট ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণকরে। ধর্ষণের পর দুই জন মিলে শিশুকে ব্লেড দিয়ে খুচিয়ে চক্ষু তুলে নেয় ও তাকে হত্যা করে।
ফাঁসির রায় শোনার পর তোরাব আলীর প্রতিক্রিয়া জানার জন্য কুরিপোল গ্রামে গেলে দেখা যায় মনের কষ্টে তিনি ঘরবাড়ী ভেঙ্গে এ উপজেলা থেকে চৌগাছা উপজেলার শুকপুকরিয়া গ্রামে চলে গেছে।
আসামী আরিফ হোসেনের বাড়ীতে যেয়ে দেখাযায় তার মা বসে আছে আরিফের একমাত্র পুত্র ৫ম শ্রেণীর ছাত্র শিহান কে নিয়ে তার মা বাবার বাড়ী নেপা গ্রামে চলে গেছে।
আসামী সাইফুলের পিতা কাশেমের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান আমার একমাত্র ছেলে সাইফুল এ বলে তিনি বাড়ী থেকে চোখ মুছতে মুছতে চলে যান।
বর্তমানে তারা যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে আছে বলে তাদের আতœীয় স্বজনরা জানান।

 রিপোর্ট »বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী , ২০১৮. সময়-৭:৩৭ pm | বাংলা- 5 Magh 1424
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP