Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

কক্সবাজারে গ্রাহকদের ২ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে কর্মকর্তারা লাপাত্তা

coxsbazar rdp office 16.3.2015-2এম.শাহজাহান চৌধুরী শাহীন , কক্সবাজার,  আরডিপি ফিন্যান্স এন্ড ইনভেষ্টমেন্ট (এমসিএস) লিঃ নামের একটি প্রতিষ্টান প্রায় ৫ হাজার গ্রাহকের কাছ থেকে আমানত সংগ্রহের মাধ্যমে তা ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায় বিনিয়োগের কথা বলে ২ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছে। কক্সবাজার শহরের কালুর দোকানস্থ ওই অফিসের দরজায় এখন তালা ঝুলছে।  এনিয়ে গ্রাহকেরা চরম বেকায়দায় পড়ে গেছে।

অভিযোগে জানা গেছে, কক্সবাজার শহরের টেকপাড়া কালুর দোকানস্থ প্রধান সড়ক সংলগ্ন শেখ মঞ্জিল ৩য় তলা আরডিপি ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেষ্টমেন্ট এমসিএস লিমিটেড এর এরিয়া অফিস খুলে বসেন। এই প্রতিষ্টানের গুটি কয়েক কমকর্তা কর্মচারীর সমন্বয়ে  বিলাসী আসবাবপত্র সাড়িয়ে অফিস কার্যক্রমও শৃুরু করেন ব্যাপক ভাবে। কিছু দিন পর ওই প্রতিষ্টানের পক্ষ থেকে গ্রাহকদের সেবা দেওয়ার নামে লোভনীয় অফার দিয়ে প্রচার প্রচারণা চালায়। জনগণের কাছ থেকে আমানত সংগ্রহের মাধ্যমে তা ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায় বিনিয়োগ প্রদানের লক্ষ্যে এবং অথনৈতিক উন্নয়ন সাধন ও বেকারত্ব দূরীকরণ নামে কিছু সংখ্যক মাঠ কর্মী নিয়োগের মাধ্যমে কক্সবাজার পৌরশহরসহ জেলা বিভিন্ন এলাকায় হতে গ্রাহক সংগ্রহ করা হয়।

কয়েক জন গ্রাহক জানান, ওই প্রতিষ্টানের মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্পের নামে নিরীহ লোকজনকে প্রলোভনে ফেলে ৩ মাসের কিসিত্মতে সঞ্চয় করলে পরবর্তীতে মোটা অংকের ঋণ দেওয়ার কথা বলে গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা সংগ্রহ করেন। মাঠ কর্মীরা পৌরসভা এলাকাসহ জেলা বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রায় পাঁচ সহস্রাধিক নারী ও পুরুষকে ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্পের অধীনে সদস্যভুক্ত করে। এসব সদস্যদেরকে পাস বই সরবরাহের মাধ্যমে প্রতি সদস্যের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যমত্ম কিসিত্মতে টাকা জামানত গ্রহণ করা হয়। এই ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্পের সদস্যদের কাছ থেকে আদায়কৃত টাকার পরিমাণ আনুমানিক দেড় থেকে ২ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছে গ্রাহকরা।

কক্সবাজার শহরের মধ্যম বাহারছড়ার অধিবাসি পরিমাল রুদ্রের ছেলে গ্রাহক যিশু রুদ্র জানান, ওই প্রতিষ্টানে কর্মরত মাঠ কর্মী শফি উল্লাহ লোভনীয় অফারে ফাঁদে পড়ে আমি ডিএসএস প্রকল্পে সদস্য হিসেবে অমর্ত্মভুক্ত হই। (যার সদস্য নং-১৬৭৯ এবং হিসাব নং-১২-৯০৯)।

তিনি বলেন, গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর হতে সঞ্চয় হিসাবটি চালু করি। গত ৩ ফেব্রুয়ারী পর্যমত্ম দৈনিক ৫০ টাকা হারে সঞ্চয়ের টাকা জমা করে আসছি। ইতোমধ্যে আমার মতো ওই প্রতিষ্ঠানে আরো যে সব সদস্য অমর্ত্মভুক্ত হয়েছে তাদের কাছ থেকেও অনুরূপ ভাবে টাকা নেওয়া হয়।

তিনি জানিয়েছেন, আমার মতো প্রতারিত অন্যান্য সদস্যদের কাছ থেকে এই প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা সম্পর্কে অবগত হয়ে তা সরজমিন জানার জন্য সোমবার ১৬ মার্চ শহরের কালুর দোকানস্থ ওই অফিসে গিয়ে দেখি অফিসের প্রধান ফটকে ৬টি তালা ঝুলছে। মাঠকর্মী শফি উল্লাহর ব্যবহৃত মোবাইল ( নং-০১৮৩০-৫৬৬৭৬৭) নম্বর বন্ধ পাওয়া যায় । এমনকি আরডিপি কক্সবাজার এরিয়া ব্যবস্থাপক এর মোবাইল ( ০১৮৩৯৯১২২১৮, ০১৯২৯ ৯১২২৬৪, ০১৯২৯ ৯১২২৬১     ) নম্বর গুলোও বন্ধ পাওয়ায় তাদের সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না।

গ্রাহকদের মতে, সাধারণ মানুষকে ফাঁদে ফেলে তারা কৌশলে গ্রাহকদের সঞ্চয়ের প্রায় ২ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে। এ অবস্থায় তাদের মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ার পরিস্থিতি সৃষ্ঠি হয়েছে। অনেক নিম্ন আয়ের মানুষ সঞ্চয় জামানত করে নিঃস্ব অবস্থায় পড়ে গেছে। বর্তমানে এই প্রতিষ্টান হতে প্রতারিত গ্রাহকরা তাদের সঞ্চয়ের টাকা ফিরে পাওয়ার জন্য প্রশাসনের হসত্মক্ষেপ কামনা করেছেন।

প্রসংগত, আরডিপি ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেষ্টমেন্ট এমসিএস লিমিটেড বাংলাদেশ পল্লী ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীনে অনুমোদিত একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। ২০০৭ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারী নারায়নগঞ্জ শাখা উদ্বোধনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এর কার্যক্রম শুরু করেন এটি। বতর্মানে কক্সবাজার শহরসহ সারাদেশ ব্যাপী এর ৭১ টি শাখার কার্যক্রম প্রসারিত। জনগণের কাছ থেকে আমানত সংগ্রহের মাধ্যমে ও তা ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায় বিনিয়োগ প্রদানের লক্ষ্যে দেশের অথনৈতিক উন্নয়ন সাধন ও বেকারত্ব দূরীকরণ এই প্রতিষ্ঠানের একমাত্র উদ্দেশ্য বলে তাদের প্রচারপত্রে উল্লেখ করা হয়। তাদের প্রচার পত্রে ভিশন-কল্যাণমুখী অর্থব্যবস্থার প্রবর্তন, দারিদ্র্যবিমোচন ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার এবং মিশন-আয়ের উৎস সৃষ্টি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সামাজিক নিরাপত্তা, নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা, সুষ্ঠু সংহতির লালন ও সংরক্ষণ।

এ ব্যাপারে বক্তব্য নেওয়ার জন্য আরডিপি গ্রুপ প্রধান কার্যালয় সুলতান আহম্মেদ প্লাজা, ৩২ পুরানা পল্টন ঢাকায় ০২-৭১২০২৫৬, ০১৮৩-৯৯১২২২২, ০১৯২-৬৮৮৮৮৭৫, ০১৯২-৬৮৮৮৮৭৬ ফোন করে কাউকে পাওয়া যায়নি।

 রিপোর্ট »মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ , ২০১৫. সময়-৭:৪৫ pm | বাংলা- 3 Chaitro 1421
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP