Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

কোটচাঁদপুরে পিতার বিরুদ্ধে কন্যার সংবাদ সম্মেলন

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি VLUU L100, M100  / Samsung L100, M100

কন্যার সম্পত্তি দখল, অর্থ আত্মসাৎ, মিথ্যা মামলা দায়ের ও শারিরীকভাবে নিগৃহীত করার অভিযোগ এনে পিতার বিরম্নদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার সুজায়েদপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মন্ডলের বড় মেয়ে রোকেয়া খাতুন। বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পিতার বিরম্নদ্ধে এ সমসত্ম অভিযোগ উলেস্নখ করে লিখিত বক্তব্য রাখেন তিনি।

রোকেয়া খাতুন বলেন, তার পিতা আব্দুস সাত্তার মন্ডল চুয়াডাঙ্গা সদর থানার সুজায়েদপুর গ্রামের বাসিন্দা। ১৯৯৫ সালের দিকে বেশ কয়েকটি হত্যা ও ডাকাতি মামলায় গ্রেফতার এড়াতে স্বপরিবারে তারা বাড়ি ছেড়ে শার্শা থানার রেল বসিত্মতে আশ্রয় নিয়ে বসবাস শুরম্ন করে। সেখানে একটি চায়ের দোকান দিয়ে কিছুদিন ব্যবসা করার পর ওই এলাকার বুজতলা গ্রামের অর্থশালী মোসা খানের সাথে আমার পিতার পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে মোসা খানের সাথে আমার বিয়ে দেন। বিয়ের পর পিতা আব্দুস সাত্তার স্বামী মোসা খানকে অনুরোধ করেন যে, মামলার কারণে গ্রামের বাড়িতে যেতে পারছিনা তুমি তদবির করে  মামলা গুলি নিষ্পত্তি করে দাও খরচ যা হয় আমি বাড়িতে যেতে পারলে দিয়ে দেব। এ সময় আমার স্বামী সরল বিশ্বাসে মামলার বাদীদের কাছে গিয়ে প্রায় আট লাখ টাকা খরচ করে ২০০৩ সালের দিকে মামলাগুলি নিষ্পত্তি করেন। কিন্তু পরবর্তীতে গ্রামের বাড়ি ফিরে আসলেও তিনি আবারও স্বামীর অর্থ সম্পদ হাতিয়ে নিতে নতুন করে পরিকল্পনা আটতে থাকেন। যা আমরা বুঝে উঠতে পারিনি। তার পরিকল্পনা অনুযায়ী মামলার খরচের টাকা না দিয়ে মৌখিক ভাবে বাড়ির পাশে চার শতক জমি দেন এবং ওই জমিতে বাড়ি করে শার্শা থেকে চলে আসার জন্য অনুনয় বিনয় করতে থাকেন। এক পর্যায়ে আমরা রাজি হয়ে পিতার অনুরোধে ওই জমিতে বাড়ি নির্মাণ করে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার সুজায়েদপুর গ্রামে বসবাস শুরম্ন করি। কিছুদিন পর ওই বাড়ির পাশে আমার স্বামী সাড়ে তিন বিঘা জমি ক্রয় করেন। এদিকে পাওনা আট লাখ টাকা পরিশোধ না করে উল্টো আমার পিতা বিভিন্ন ছলচাতুরীর মাধ্যমে স্বামীর অর্থকড়ি হাতানোর চেষ্টায় লিপ্ত হয়। বিষয়টি বুঝতে পেরে বাধ্য হয়ে আমরা পিতার সাথে সম্পর্ক চ্ছেদ করি। এরপর তিনি মৌখিকভাবে দেয়া জমির বাড়ি থেকে জোরপূর্বক আমাদের নামিয়ে দেয়। পরে আমরা ক্রয়কৃত সাড়ে তিন বিঘা জমির উপর বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস শুরম্ন করি। এরপরও আমার পিতা, মেজ বোনাই আবুজার মোলস্না ও ভাই আলিমকে সাথে নিয়ে আমার ৩ সমত্মানসহ আমাদেরকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ইতিমধ্যেই আমার পিতা সম্পদ কুক্ষিগত করতে স্বামীর বিরম্নদ্ধে মিথ্যা মামলা চাপিয়েছে। এদিকে তিনি, চাচা আব্দুল আলিম এবং বোনাই আবুজার চরমপন্থি দলের সক্রিয় সদস্য হওয়ায় তাদের বিরম্নদ্ধে কেউ কোন প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না। সন্ত্রাসী পিতা, ভাই ও বোনাইদের কারণে বর্তমানে আমি স্বামী সমত্মানদের নিয়ে চরম নিরাপত্তা হীনতার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। এ নিরাপত্তা হীনতার হাত থেকে বাঁচার জন্য সাংবাদিক সমাজের মাধ্যমে সংশিস্নষ্ট প্রশাসনের হসত্মক্ষেপ কামনা করেছেন রোকেয়া খাতুন।

 রিপোর্ট »শুক্রবার, ২০ ফেব্রুয়ারী , ২০১৫. সময়-৭:২৪ pm | বাংলা- 8 Falgun 1421
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP