Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

মহেশপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের দালাল ও অফিস সহকারী গোপালের কাছে জিম্মি সাধারন মানুষ ,উৎকোচ লাখে ১ হাজার টাকা

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) থেকে মোঃ আজাদঃ

মহেশপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস দূর্নীতির আখড়ায় পরিনত হয়েছে। সেই সাথে বেড়েছে দালালদের দৌরাত্ব।

সাধারন মানুষ জিম্মি হয়ে পড়েছে দালাল আর অফিস সহকারী গোপাল বাবুর কাছে। দলিল প্রতি অফিস খরচের নামে লাখে ১ হাজার টাকা না দিলে জমি রেজিষ্ট্রি হয় না।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে,ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার পৌরসভা সহ ১২টি ইউনিয়নের সাধারন মানুষ জমি রেজিষ্ট্রি এসে কিছু অসাধু মহুরী ও অফিস সহকারী  গোপাল বাবুর কাছে জিম্মি হয়ে পড়ছে।

তাদের কাছ থেকে অফিস খরচ বাবদ হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতি লাখে এক হাজার টাকা। গ্রামের সহজ সরল লোকদেরকে বোকা বানিয়ে,বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে এক প্রকার জোর পূর্বক এ টাকা আদায় করা হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ক্রেতা জানান, আমরা জমি রেজিষ্ট্রির জন্য সরকারী ফি বাবদ ন্যায্য টাকা সোনালী ব্যাংকে জমা দিয়ে ব্যাংক ড্রাফ্ট জমির কাগজ পত্রের সাথে দিলেও জমি রেজিষ্ট্রি করার পর অফিস খরচ বাবদ লাখে এক হাজার করে টাকা দিতে হচ্ছে, না দিলে জমি রেজিষ্ট্রি হয় না। গ্রামের সহজ সরল এসব লোকজন কিছু না বুঝে ভয়ে এ টাকা দিতে বাধ্য হয়।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই জন মহুরি জানান,আপনি যেই হন না কেন অফিস খরচ বাবদ লাখে এক হাজার টাকা করে আপনাকে দিতেই হবে। আর এ টাকাটা অফিস সহকারী  গোপাল বাবু ক্রেতার কাছ থেকে  সরাসরি না নিয়ে,আমাদের মত দলিল লেখকদের কাছ থেকেই আদায় করে থাকে। তাই আমাদেরকেও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে অফিস খরচ  নিতে হয়।

গত ১৪ই মে মান্দারবাড়ীয়া গ্রামের  সাংবাদিক নাসীর উদ্দিন তার স্ত্রী নিপুন্নাহারের নামে নয় লÿ টাকা মুল্যের একটি দলিল রেজিষ্ট্রি করে (যার নম্বর ৩৪৮৬)। দলিল রেজিষ্ট্রি হওয়ার পর  গোপাল বাবু মহুরী মরফত তার কাছে অফিস খরচ বাবদ নয় হাজার টাকা দাবি করেন। নাসীর উদ্দিন  গোপাল বাবুর নিকট জানতে চান অফিস খরচ বাবদ কোন কোন খাতে কত টাকা দিতে হবে, তখন  গোপাল বাবু বলেন এ বিষয়ে আপনার সাথে আমার কোন কথা নেয়। আমি মহুরীর কাছ থেকে বুঝে নেব।

নাসির উদ্দিন এ প্রতিনিধিকে জানান,আমি গত ১৪ই মে আমার স্ত্রী নিপুন্নাহারের নামে সরকারী সমসত্ম ফিস সোনালী ব্যাংক মহেশপুর শাখায় জমা দিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি করি। জমি রেজিষ্ট্রি হওয়ার পর গোপাল বাবু মহুরি মারফত অফিস খরচ বাবদ নয় লাখে নয় হাজার টাকা দাবি করে । আমি টাকা দিতে রাজি না হলে গোপাল বাবুর সাথে আমার বাকবিতন্ডা শুরম্ন হয়। বাকবিতন্ডার এক পর্যায় সাব রেজিষ্ট্রার তাদেরকে তার কÿÿ ডেকে ভুল স্বীকার করে সমাধান করে দেন।

একই দিন ভৈরবা গ্রামের বাবুল আক্তার সমেন কুমার নাথ(মিঠু) নামে মোহুরী দিয়ে সাড়ে তিন লাখ টাকার একটি দলিল রেজিষ্ট্রি করেন (যার নম্বর ৩৪৮৭)। তার কাছ থেকে নেয়া হয় দুই হাজার টাকা। দলিল লেখক সমেন কুমার নাথ (মিঠু) জানান,আপনাদের (সাংবাদিকদের) দোহায় দিলেও অফিস খরজ বাবদ ঘুষখোর অফিস সহকারী গোপাল বাবুকে দিতে হয় দুই হাজার টাকা।

হুদো শ্রীরামপুরের হানিফ মেম্বর জানান, কয়েক দিন আগে আমি একটি দলিল করতে গেলে আমার সাথেও ঘুষখোর গোপাল বাবুর অফিস খরচের টাকা নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়।

এ ব্যাপারে অফিস সহকারী গোপাল বাবু জানান, আমার এখানে কোন টাকা পয়সা নেয়া হয় না।

এলাকাবাসি দূর্নীতি পরায়ন ঘুষখোর অফিস সহকারী গোপাল বাবুর হাত থেকে পরিত্রান পেতে সংসদ্য’র হসত্মÿÿপ কামনা করেছেন।

 রিপোর্ট »মঙ্গলবার, ৩ জুন , ২০১৪. সময়-১১:০৪ pm | বাংলা- 20 Joishtho 1421
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP