Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

নন্দীগ্রামের গৃহবধুরা ঠকঠকি আর তাঁতের মাধ্যমে গামছা তৈরী করে স্বাবলম্বি

14-04-2014NPনন্দীগ্রাম(বগুড়া)সংবাদদাতাঃ বগুড়ার নন্দীগ্রামের গ্রাম্যপলস্নীর গৃহবধুরা ঠকঠকি আর তাঁতের মাধ্যমে গামছা তৈরী করছে। এতে করে ১০টি পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরে এসেছে। এদের দেখে অনেকেই গামছা তৈরী করতে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। সূত্রমতে, উপজেলার নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের গোছইন গ্রামের ছয়-ঘটি পুকুর পাড়ে বসবাসরত ১০টি পরিবার গামছা তৈরী করে তাদের জিবন যাত্রার পরিবর্তন করেছে। এ পেশার আগে তারা দুঃখে কষ্টের সাথে প্রতিনিয়ত জিবনের সাথে যুদ্ধ করেছে। দুর্দিনে পরিবারের খরচ চালাতে তাদের হিমশিম খেতে হয়েছে। এখন সেইসব পরিবার গুলো দুঃখ কষ্ট অতিক্রম করে সুখের কিনারায় পা রেখেছে। এদের মধ্যে বেশীর ভাগই মহিলা কারিগর। লাইলি বেগম বলেন, আমি দির্ঘদিন ধরে হসত্মশিল্পের মাধ্যমে কারিগরী কাজ করে আসছি। আমাদের হাতে তৈরী গামছা ও ছাদর দেশের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত হচ্ছে। তবে গামছা ও চাদর বেশকিছু অঞ্চলে সাড়া জাগিয়ে তুলেছে। হাতের তৈরী ঠকঠকি ও তাঁতের মাধ্যমে গামছা তৈরী করা হয়। বাজরে একমুড়া সুতার দাম ৫০টাকা। সেখান থেকে ৫ফিটি সুতা তৈরী হয়। দুইমুড়া সুতা দিয়ে ৪টি গামছা তৈরী করা যায়। ৪টি গামছা বাজারে পাইকারী বিক্রয় হয় ২শ’ ২০টাকায়। তৈরী করতে খরচ হয় ১শ’ টাকা। প্রতিদিন একজন কারিগর ৫থেকে ৬টি গামছা তৈরী করতে পারে। তাঁত কারিগর আলেয়া বেগম জানান, একজন কারিগর প্রতি মাসে ১৮০টি গামছা তৈরী করতে পারে। এতে সুতা লাগে ৪৫মুড়া। এতে করে একজন কারিগর ৯হাজার ৯০০টাকার গামছা বিক্রয় করতে পারে। খরচ হয় ২হাজার ২শ’’ ৫০টাকা। প্রতিমাসে সেখান থেকে আয় আসে ৭হাজার’ ৬শ’ ৫০টাকা। এই আয়ের টাকা দিয়েই আমার পরিবারের সংসার ভাল ভাবেই চলছে। কারো কাছে সংসারের প্রয়োজনীয় জিনিসের জন্য হাত বাড়াতে হয় না। কারিগর ইউসুব আলী বলেন, সরকার যদি আমাদের ঋন দিয়ে আর্থিক সহযোগীতা করেন তাহলে আমরা ভালভাবে এই তাঁতশিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে পারবো। সেখান থেকে অনেক পরিবার সচ্ছলতা লাভ করবে। এই তাঁতশিল্পকে বাঁচিয়ে রাখেতে সরকারী ভাবে পদÿÿপ গ্রহনের জন্য উদ্ধতন কতৃপÿÿর সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন ওই সকল কারিগর।

 

 রিপোর্ট »সোমবার, ১৪ এপ্রিল , ২০১৪. সময়-১০:৪৬ pm | বাংলা- 1 Boishakh 1421
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP