Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

বৃহস্পতিবারের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা ১৩, আইনশৃঙ্খলা কমিটির জরুরি বৈঠক

এম. বেলাল হোসাইন ,সাতক্ষীরা :: মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর রায় ঘোষণার পর   সাতক্ষীরায় সংঘর্ষে এ পর্যন্ত ১৩ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। গোটা এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। শহরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।
নিহতদের মধ্যে জামায়াত-শিবিরের ১১ জন ও ছাত্রলীগ-যুবলীগের দুজন বলে জানা গেছে। পুলিশ বলছে নিহতের সংখ্যা সাত। নিহতদের পরিবারে চলছে  এখন শোকের মাতম। স্বজনদের দাবি, খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক। এ ঘটনায় সাতক্ষীরায় শনিবার অর্ধদির্বস হরতাল ডেকেছে স্থানীয় জামায়াত। সাতক্ষীরা জামায়াতের প্রচার সেক্রেটারি আজিজুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
নিহতদের সৎকারে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে স্বজনরা। শুক্রবার দুপুরে জানাজা নামাজ শেষে নিহতদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জরুরি বৈঠক করেছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন।
উল্লেখ্য, সংঘর্ষে নিহতরা হচ্ছেন, সদর উপজেলার ঘোনা গ্রামের আনোয়ারুল ইষরামের পুত্র শিবিরকর্মী রবিউল ইসলাম (৩০), খানপুর গ্রামের মাহবুর রহমানের পুত্র শিবিরকর্মী সাইফুল্লাহ (২০), গড়েরডাঙ্গা গ্রামের অজিয়ার রহমানের পুত্র শিবিরকর্মী শাহিনুর রহমান (২১), হরিশপুর গ্রামের আব্দুল বারিকের পুত্র শিবিরকর্মী তুহিন (২০), শহরের মুন্সিপাড়ার মেছের আলীর ছেলে শিবিরকর্মী মোশাররফ হোসেন (১৮), ঘোনা গ্রামের জামায়াতকর্মী আনারুল ইসলাম (৩০), হরিশপুর গ্রামের আব্দুল বারীর পুত্র শিবিরকর্মী ইকবাল হোসেন (১৯), বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র শিবিরকর্মী আবুল হাসান (২০), এমদাদ হোসেন (২৩), সিটি কলেজের সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি রসুলপুরের মামুন (২৯) ও দেবহাটা উপজেলার শশাডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল আজিজের পুত্র শিবিরকর্মী আলী মোস্তফা (২০)।
এছাড়া গোয়েন্দা পুলিশ এনএসআইর এডি এমদাদ হোসেন, ডিএসবর কনস্টেবল রিয়াজ, আর্মড পুলিশ সদস্য ফরিদসহ কমপক্ষে জামায়াত-শিবিরের ৫০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। হতাহতের বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো কথা বলা হচ্ছে না সাংবাদিকদের।
সাঈদীর রায় ঘোষণার পর গতকাল বিকেলে শহরের সার্কিট হাউজ মোড়ে পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের সাথে জামায়াত শিবিরের সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। সেখানে বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা হাজার হাজার রাউন্ড গুলি, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে রাতেই সাতক্ষীরায় ১৪৪ ধারা জারি করে সব ধরনের মিছিল-মিটিং সমাবেশ নিসিদ্ধ করা হয়েছে।শুক্রবার বেলা তিনটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সাতক্ষীরার কোথাও কোনো সংঘর্ষ বা হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

 রিপোর্ট »শুক্রবার, ১ মার্চ , ২০১৩. সময়-৯:৫১ pm | বাংলা- 17 Falgun 1419
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP