Breaking »

Warning: include(/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php): failed to open stream: No such file or directory in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

Warning: include(): Failed opening '/home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single-sidebar.php' for inclusion (include_path='.:/usr/lib/php:/usr/local/lib/php') in /home/shesherk/public_html/wp-content/themes/shesherkhobor/single.php(2) : eval()'d code(1) : eval()'d code on line 2

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মিরসরাইয়ে বাড়ছে দুর্ঘটনা

মু. দি. আলম, মিরসরাই(চট্টগ্রাম)ঃ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনা দিনদিন বেড়েই চলছে। রাস্তায় ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল, অদক্ষ চালক, সড়কে খানাখন্দের বাইরে আরও প্রায় ২০টি কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে যাত্রীবাহী ও মালবাহী যানবাহনগুলো। দূর্ঘটনার শিকার হয়ে উপজেলায় বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় সূত্রে জানা গেছে, মহাসড়কে সতর্কীকরণ বার্তা সম্বলিত বিভিন্ন সাংকেতিক চিহ্ন থাকা সত্ত্বেও চালকরা তা মানছেন না। বাঁকের মধ্যে সর্বচ্চো ৪০ কিলোমিটার গতিসীমার বাহিরে গাড়ি না চালানোর আইন আছে। কিন্তু তা লঙ্ঘন করে মালবোঝাই ট্রাক, কাভার্ড ভ্যানসহ দ্রুতগামী গাড়িগুলো চালানো হচ্ছে। এতে বাঁকের মধ্যে গাড়ী উল্টে পড়ে অথবা মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এছাড়া প্রতিটি ট্রাকের ওজন (পণ্য ও গাড়িসহ) ১০ টনের বেশি হবে না। কিন্তু সেখানে ৩০-৩৫ টন মালামাল বহণ করা হয়। এতে সড়ক অবকাঠামো নষ্ট হয়ে যানবাহন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।

জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গত পাঁচ বছরে প্রায় এক হাজার ৫৭৮ জন নিহত এবং দুই হাজার ৬৮৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের একটি বড় অংশই আজীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ করে অভিশপ্ত জীবন কাটাচ্ছেন। প্রায় এক হাজার ৫০৯ টি দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে দুই হাজার ১৫৩ টি যানবাহন। এসব দুর্ঘটনার অধিকাংশই ঘটছে চালকদের অদক্ষতার কারণে। এর বাইরেও মাত্রারিক্ত গতি, চালকের ক্লান্তি, দুটি গাড়ি একসাথে পাশাপাশি চলা, বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ির গতি সর্ম্পকে না জেনে ওভারটেক করা, ভুলভাবে মোড় নেয়া, চালকদের ভুল সংকেত, ভুল ওভারটেকিং, চলন্ত অবস্থায় মোবাইল ফোনে কথা বলা, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো, ফিটনেস বিহীন গাড়ী, চালকের পরিবর্তে হেলপার দিয়ে গাড়ি চালানো, খানাখন্দ সড়ক, আবহাওয়াগত পরিস্থিতি (কুয়াশাসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ), অতিরিক্ত বহন (পণ্য ও মানুষ), চাকা ফাটা, ঝুঁকিপূর্ণ গতিরোধক (স্পীড ব্রেকার), ঝুঁকিপুর্ণ ও সরু ব্রিজ-কালভাট সড়কে স্বাভাবিক যান চলাচলে অন্তরায় হয়ে থাকে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নিয়মিত কয়েকজন চালকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক এতটাই ব্যস্ত যে, প্রতি মুহুর্তেই এখানে দ্রুতগতির গাড়িগুলো তুলণামুলক কমগতির গাড়িগুলোকে ওভারটেক করে। বিপরীত দিক থকে আসা গাড়ীর গতি সম্পর্কে ধারণা না থাকায় প্রায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এটি এ সড়কে দুর্ঘটনার অন্যতম একটি কারণ বলে জানা গেছে।

সড়কও জনপদ বিভাগ (সওজ) কর্তৃপক্ষ সড়কের বিভিন্ন এলাকায় গাড়ির গতিসীমা নির্ধারণ করে দিলেও  চালকরা ওই গতিসীমা না মেনে মাত্রাতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালায়।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ঢাক-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ের মস্তান-নগর বাইপাস, মিঠাছড়া বাইপাস, বড়তাকিয়া বাইপাস, ছোট কমলদহ বাইপাস এলাকায় বেশি দুর্ঘটনা ঘটে।

মিরসরাই থানা ও জোরারগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ মোহাম্মদ রাহাত জানান, গত আট মাসে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে দুইশত ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটে। আর এতে হতাহত হয় শতাধিক ব্যক্তি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই চালকদের অদক্ষতা, অসতর্কতার কারণে এসব দূর্ঘটনা ঘটে।

 

 রিপোর্ট »সোমবার, ২৮ মে , ২০১২. সময়-৪:২৪ pm | বাংলা- 14 Joishtho 1419
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!
EDITOR;ABUL HOSSAIN LITON, DHAKA OFFICE; NAHAR MONZILl,BOX NAGAR,DEMRA,DHAKA.OFFICE;MAHESHPUR,JHENAIDAH,BANGLADESH. Copyright © 2011 » All rights reserved http/shesherkhobor.com, MOB: 8801711245104,Email:shesherkhobor@gmail.com 
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP